শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৯:১৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজোর মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু ঠাকুরগাঁওয়ে সংঘর্ষ এড়াতে দুর্গা মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি ডিবির অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্রদের মাঝে গরুর বাছুর বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের কবরে ছেলের লাশ উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার ২ অভিনন্দন মোখলেছুর রহমান খান ভাসানী ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও এএসপি এনায়েত করিমের যৌথ প্রচেষ্টায় কবরস্থান পেলো বেদে সম্প্রদায় ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ দফা দাবিতে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন পূজা মণ্ডপে সন্ধ্যায় আরতির পর প্রবেশ নিষেধ

রেক্সোনা হত্যা মামলার আরও ২ আসামি গ্রেফতার

বাংলার আলো ডেস্ক
  • হালনাগাদ সময় : রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৩১ বার

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়া বেতাই গ্রামের রেক্সোনা খাতুন হত্যার ঘটনায় আরও ২ জন আসামিকে গ্রেফতার করেছে সদর থানা পুলিশ। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) কোটচাঁদপুর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

রেক্সোনা পোড়া বেতাই গ্রামের নুর ইসলামের মেয়ে। এ ঘটনায় বিজ্ঞ আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে হত্যাকাণ্ডের বিস্তারিত লোমহর্ষক বর্ণনা দেন আসামি শাকিল হোসেন ও ইমরান। বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার পর বিয়ের চাপ সৃষ্টি করায় তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার মাধবপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে সিদ্দিকুর রহমানের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে পোড়া বেতাই গ্রামের নুর ইসলামের মেয়ে রেক্সোনার বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। এ বিষয়ে রেক্সোনা সিদ্দিকুর রহমানকে বিয়ের চাপ দিতে থাকে।

এরই মাঝে রাজমিস্ত্রি সিদ্দিকুর রহমান পূর্ব পরিকল্পিতভাবে তার সহযোগী জেলার কোটচাদপুর উপজেলার হাজীডাঙ্গা গ্রামের জামাত আলীর ছেলে শাকিল ও ইকড়া গ্রামের ছাব্দার আলীর ছেলে ইমরানকে সঙ্গে নিয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটায়।

ঝিনাইদহ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, ঝিনাইদহ পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম স্যারের নির্দেশনা মোতাবেক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আবুল বাশার স্যারের নেতৃত্বে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে রেক্সোনা হত্যা মামলার মূল আসামি মো. শাকিল হোসেন (২০) ও ইমরান হোসেনকে আটক করা হয়। পরে তারা ১৬৪ ধারায় আদালতে হত্যার বিস্তারিত তুলে ধরে জবানবন্দি দেন।

তিনি আরও জানান, রাজমিস্ত্রী ছিদ্দিক তার দুই সহযোগীকে নিয়ে হত্যা করে। তাদের বাড়ি জেলার কোটচাদপুর উপজেলায়। ছিদ্দিক বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ার পর রেক্সোনা বিয়ের চাপ সৃষ্টি করায় তাকে হত্যা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই দুপুরে পোড়া বেতাই গ্রামের মাঠে কার্তিকের মেহগনি বাগানে গলাই ওড়না পেচানো অবস্থায় রেক্সোনার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে রেক্সোনার পিতা নুর ইসলাম মোল্লা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪১,৯৯২,০১৩
সুস্থ
৩১,১৮৪,৫৪৪
মৃত্যু
১,১৪২,৭৩১
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102