মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

রাজশাহীতে চেয়ারে বসেই আইনজীবীর মৃত্যু !

সংবাদদাতার নাম
  • হালনাগাদ সময় : শুক্রবার, ২৬ জুন, ২০২০
  • ৬৩ বার

রাজশাহী মহানগরীতে চেয়ারে বসা অবস্থায় কৃষ্ণ কমল দত্ত (৮৫) নামক এক আইনজীবীর মৃত্যু হয়েছে। প্রতিবেশীরা করোনার ভয়ে কাছে যায়নি। মৃত অবস্থায় দুই ঘণ্টা চেয়ারেই বসা ছিলো লাশ। পরে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন থেকে লোক এসে তা উদ্ধার করে।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তিনি মারা যান। তিনি নগরীর কুমারপাড়া এলাকার বাসিন্দা ছিলেন। কুমারপাড়া এলাকার কালিমাতা মন্দিরের পেছনে তার বাড়ি।

জানা যায়, বাড়িতে কৃষ্ণ কমল একা থাকতেন। তিনি নিঃসন্তান ছিলেন। তার স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরেই তার সঙ্গে থাকেন না। রাজশাহী ও নাটোর জেলা জজ আদালত ও বিভাগীয় শ্রম আদালতে ওকালতি করতেন।

প্রতিবেশীরা জানান প্রায় ১০ দিন ধরে তিনি জ্বর ও কাশিতে ভুগছিলেন। তবে তার শ্বাসকষ্ট ছিল না। করোনায় তার মৃত্যু হয়েছে ভেবে প্রতিবেশীরা কেউ মরদেহের কাছে যাননি। দুই ঘণ্টা মরদেহ চেয়ারেই ছিলো।

মৃতের ছোট ভাইয়ের ছেলে সুইট কুমার দত্ত জানান, এ বাড়িতে কৃষ্ণ কমল দত্ত একাই থাকতেন। তার অসুস্থতার জন্য গত মঙ্গলবার তিনি নাটোরের সিংড়া থেকে এসেছেন। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে তিনি বাইরে খাবার আনতে যান। কিছুক্ষণ পর এসে দেখেন চেয়ারে বসা অবস্থায় তিনি মারা গেছেন।

তিনি জানান, বৃহস্পতিবার কৃষ্ণ কমল দত্তকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। করোনার উপসর্গ আছে জেনে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে রাজশাহীর খ্রিস্টিয়ান মিশন হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানে চিকিৎসক কয়েকটি ওষুধ দেন। এরপর তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেয়া হয়। তখন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিতে চাইলেও কৃষ্ণ কমলের নমুনা নেয়া হয়নি।

সুইট কুমার দত্ত আরও জানান, রাজশাহী মিশন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় করোনার পরীক্ষার প্রয়োজন নেই। বাসায় বিশ্রামে থেকে নিয়ম মেনে ওষুধ খেলেই তিনি সুস্থ হয়ে যাবেন।

কৃষ্ণ কমলের মৃত্যুর পর প্রতিবেশীরা বিষয়টি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতাদের জানান। তারা খবর দেন কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনকে। দুপুর সাড়ে ১২টার পর কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশনের সদস্যরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে মরদেহের কাছে যান। জীবাণুনাশক ছিটিয়ে মরদেহটি শ্মশানে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন মরদেহ সৎকারের ব্যবস্থা করে। সৎকারে কোয়ান্টামকে সহায়তা করেছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদও।

এদিকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, হাসপাতালে হারুন-অর-রশিদ (২৫) নামে করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও দুইজন। তাদের মধ্যে একজনের মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102