শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:২৫ অপরাহ্ন

মাকে সিস্টেম করে প্রেমিকের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত কিশোরী

ডেস্ক রিপোর্ট
  • হালনাগাদ সময় : শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩৩ বার

নেত্রকোনার মদন উপজেলায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা করা হয়েছে।  বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে মদন থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে এই মামলা করেন।

মামলায় আসামি করা হয়েছে মো. হাবিবুর রহমানের ছেলে মামুন (২২), মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে হাবিবুর রহমান (৫০) ও সবুর মিয়া (৩৫) নামের তিনজনকে।মামলার বিবরণে জানা গেছে, মদন উপজেলার মাঘান ইউনিয়নের রুহুলী গ্রামের ধর্ষণকারী মামুন দীর্ঘদিন ধরে প্রেম-ভালোবাসার অভিনয় করে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলে বাদীর কিশোরী কন্যার সাথে। গেলো সোমবার মোবাইল ফোনে রাত তিনটার দিকে বিবাদী মামুন ভিকটিমের সঙ্গে যোগাযোগ করে ভিকটিমের রান্নাঘরে কৌশলে নিয়ে আসে। এ সময় পরিবারের লোকজন টের পেয়ে রান্নাঘরে গিয়ে বৈদ্যুতিক বাতি জ্বালিয়ে মামুনকে অনৈতিক কাজে লিপ্ত থাকতে দেখতে পায়। পরে প্রতিবেশীরা এসে মামুনকে আটক করে।খবর পেয়ে মামুনের বাবা হাবিবুর রহমান এবং ভগ্নিপতি সবুর মিয়া ঘটনাস্থলে এসে বিবাহবন্ধনের আশ্বাস দিয়ে মামুনকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে মামুন ও তার পরিবার বিয়ের কথা অস্বীকৃতি জানালে ভিকটিমের পরিবার আইনের আশ্রয় নেয়।এ ব্যাপারে মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুজ্জামান জানান, ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তিনজনের নামে মামলা করেছেন ভিকটিমের বাবা। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102