শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ০৪:৪০ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :

মর্মান্তিক, মেয়ের মৃত্যু দেখে মায়ের আত্মহত্যা

ডেস্ক রিপোর্ট
  • হালনাগাদ সময় : মঙ্গলবার, ৮ জুন, ২০২১
  • ৫৩ বার

নওগাঁর বদলগাছীতে পারিবারিক জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে মা-মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। মেয়ের লাশ দেখে মা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার আধাইপুর ইউনিয়নের দেউলিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিয়ে গ্রামবাসীর মধ্যে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে।

জানা যায়, ওই গ্রামের লবিন উদ্দীন তার সবটুকু সম্পত্তি তার ছেলে আব্দুল লতিফ ও মেয়ে লতা পারভীনের নামে লিখে দেন। লতা পারভীন তার ছেলের চাকরি বাবদ জমি বিক্রয় করতে চাইলে মায়ের সঙ্গে বিরোধ সৃষ্টি হয়। মায়ের দাবি, বাবা-মা বেঁচে থাকতে জমি বিক্রয় করা যাবে না। বিষয়টি নিয়ে লতা ও তার স্বামীর মধ্যেও বিরোধ শুরু হয়।

এক পর্যায়ে অভিমান করে লতা পারভীন সোমবার সন্ধ্যার পর লেপটিক (ক্লোনাজিপাম) ট্যাবলেট খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে রাত ৯টার পর তাকে বদলগাছী হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে তাকে নওগাঁ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। লতা পারভীন (৪০) দেউলিয়া গ্রামের সুলতানের স্ত্রী।

রাত ২টার দিকে মেয়ে লতার লাশ বাড়িতে আনা হয়। এ সময় তার মা হাছনা বানু (৬০) মেয়ের মৃত লাশ দেখে বাড়িতে ছুটে গিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করেন।

বদলগাছী থানার ওসি মো. আতিকুল ইসলাম জানান, পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে মেয়ে বিষের ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যা করে। মেয়ের লাশ দেখে মা আত্মহত্যা করে। উভয়ের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102