মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৩:৪৮ পূর্বাহ্ন

বৃষ্টির দিনে জিভে জল আনা ভুনা খিচুড়ি

লাইফস্টাইল ডেস্ক
  • হালনাগাদ সময় : রবিবার, ২১ জুন, ২০২০
  • ১৮৯ বার

বৃষ্টির দিনে খাবার তালিকায় রাখতে পারেন পছন্দের ভুনা খিচুড়ি। বাড়ির ছোট-বড় সবারই পছন্দের এ খাবার তৈরি করতে পারেন ঘরেই। যদি ভুনা খিচুড়ির সঙ্গে ভুনা গরুর মাংস হয়, তা হলে তো কোনো কথাই নেই।

কীভাবে তৈরি করবেন গরুর মাংস ও ভুনা খিচুড়ি।

মাংস রান্নার জন্য

গরুর মাংস দেড় কেজি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, আদাবাটা ৩ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ৩ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, মরিচ গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, ধনিয়া গুঁড়া ২ টেবিল চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ (জিরা টেলে গুঁড়া করা), গরম মসলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, বিরিয়ানির মসলা আধা টেবিল চামচ (ইচ্ছা), লবণ স্বাদমতো, তেল আধাকাপ।

খিচুড়ি রান্নার জন্য

পোলাওয়ের চাল ১ কেজি বা ৪ কাপ, মুগডাল ১ কাপ (টেলে নিতে হবে), বুটের ডাল আধাকাপ (তিন থেকে চার ঘণ্টা আগে ভিজিয়ে রাখবেন), মসুর ডাল আধাকাপ, এলাচ ৩-৪টি, দারুচিনি ১টি, তেজপাতা ও লবঙ্গ ২ থেকে ৩টি, আদা কুচি পরিমাণমতো, সরিষার তেল আধাকাপ, ঘি ৩ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ ১০-১২টি ও লবণ স্বাদমতো।

গরম পানি সাড়ে ৭ কাপ (চাল মাপার কাপ)।

প্রণালি

হাঁড়িতে মাংসের উপকরণ, মাংস দিয়ে মেখে মেরিনেট করে চুলায় মাঝারি আঁচে কষিয়ে রান্না করতে হবে৷ মাংস থেকে পানি উঠবে তাই পানি দিতে হবে না৷

মাংস কষানো হয়ে ভাজা ভাজা হয়ে তেল ওপরে উঠে এলে পরিমাণমতো পানি দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে হবে৷

চাইলে প্রেশারকুকারে চারটি শিস দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে পারেন, তা হলে তাড়াতাড়ি হবে৷

মাংসে বেশি ঝোল থাকবে না৷ সিদ্ধ হয়ে মাখা মাখা ঝোল হওয়া পর্যন্ত চুলার আঁচ বাড়িয়ে রান্না করুন৷

রান্নার ৩০ মিনিট আগে চাল ধুয়ে পানিতে ভিজিয়ে রাখবেন (বাসমতি চাল হলে ৩০ মিনিট আর পোলাওয়ের চাল হলে ২০ মিনিট)৷ ধুয়ে চালনিতে রেখে পানি ঝরিয়ে রাখুন৷

মুগডাল ভেজে নিয়ে ঠাণ্ডা করে চালের সঙ্গে ভিজিয়ে রাখুন৷ তা হলে ডাল সুন্দর সিদ্ধ হবে৷

আলাদা হাঁড়িতে সরিষার তেল গরম করে আস্ত সব গরম মসলা, আদা কুচি আর আস্ত কাঁচামরিচ দিয়ে কয়েক সেকেন্ড ভাজুন। এবার পানি ঝরানো চাল, তিন রকম ডাল দিয়ে পাঁচ থেকে ছয় মিনিট সব একসঙ্গে ভাজুন।

চাল আর ডাল যত বেশি ভালো করে ভাজবেন খিচুড়ি তত বেশি মজা হবে এবং ঝরঝরে থাকবে।

চাল ভাজা হলে গরম পানি আর লবণ দিয়ে দুতিন বলগ (ফুটে) আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। এখন রান্না করা মাংস চালের সঙ্গে নেড়ে মিশিয়ে দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন৷

২৫ মিনিট ঢেকে দমে রান্না করবেন৷ মাঝখানে ঢাকনা একদম খুলবেন না। নইলে খিচুড়ি রান্না নষ্ট হয়ে যাবে৷ ২০ থেকে ২৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে ওপরে ঘি দিয়ে নেড়ে মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

মনে রাখবেন
চাল যতটুকু তার অর্ধেক ডাল দিয়ে খিচুড়ি রান্না করলে মজা হয়৷ চাল, পানি, ডাল একই কাপে মেপে দেবেন। মাংস দেয়ার আগে, চালের পানি যদি ঠিক হয়, তা হলে রান্নার পর খিচুড়িতে লবণ কম হবে। আর যদি সামান্য বেশি লাগে তা হলে রান্নার পর লবণ ঠিক থাকবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102