মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

বুবলিকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যা চেষ্টা, থানায় জিডি

ডেস্ক রিপোর্ট
  • হালনাগাদ সময় : সোমবার, ১ মার্চ, ২০২১
  • ৮৮ বার

গেল বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে শুটিং শেষে বাসায় ফেরার পথে উত্তরায় গাড়িচাপা দিয়ে তাকে হত্যার অভিযোগ তুলেছেন ঢাকাই নায়িকা শবনম ইয়াসমিন বুবলি। ঠিক তার আগের রাতেই উত্তরার জসীমউদ্দীন রোডে উল্টো পাশ থেকে কালো গ্লাসের নম্বর প্লেটবিহীন একটি গাড়ি দ্রুতগতিতে তার গাড়ির দিকে ধেয়ে আসে। পরপর দুদিন এ ধরনের ঘটনার পর নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন নায়িকা।

এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) রাতে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন বুবলি। জিডি নম্বর ১৯১৭। এসময় ছোট ভাই ও বাবা তার সঙ্গে ছিলেন।

জিডিতে বুবলি উল্লেখ করেন, আমি একজন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। চলচ্চিত্রের কাজের কারণে প্রায় সময় আমাকে বিভিন্ন জায়গায় যাওয়া-আসা করতে হয়। শুটিংয়ের কারণে বাসায় ফিরতে অনেক সময় রাত হয়ে যায়। এমতাবস্থায় প্রায় গত বেশ কয়েকদিন ধরে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা নম্বরবিহীন প্রাইভেটকার ও মাইক্রোবাস ব্যবহার করে আমাকে ফলো করছে। অদ্য ২৫ ফেব্রুয়ারি দিবাগত রাত আনুমানিক ২টার দিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে শুটিং শেষ করে উত্তরার ১০ নম্বর সেক্টরের বাড়িতে ফেরার পথে আনুমানিক রাত ৩টার সময় উত্তরা পশ্চিম থানার ৩ নম্বর সেক্টরের জসীমউদ্দীন রোডে পৌঁছামাত্র উল্টো দিক থেকে নম্বর প্লেটবিহীন একটি প্রাইভেটকার এসে আমার গাড়ির সামনে হার্ড ব্রেক করে। আমি আশঙ্কা করছি, অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিরা যেকোনও সময় আমার ক্ষতি করতে পারে।

এনিয়ে গত শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ফেসবুকে এক পোস্টে বুবলি লিখেন- “সব সড়ক দুর্ঘটনাই দুর্ঘটনা নয়, অনেক সময় পরিকল্পিতও হয়, তা গত দুদিন টের পেয়েছি। উপলব্ধি করেছি আমরা যা দেখি বা যা শুনি তার পেছনেও অন্য এক অজানা সত্য থাকে। মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখলাম আর ভাবছিলাম আজকের দিনটি তো আমাকে নিয়ে অন্য রকম সংবাদও হতে পারতো। হয়তো আল্লাহর রহমত, মা বাবা ভাই বোনদের দোআ আর আপনাদের ভালোবাসায় এ যাত্রায় ভালো আছি। গত চার/পাঁচদিন আমি “চোখ” নামে একটি সিনেমার শুটিং করছিলাম, যথারীতি শুটিং শেষে রাতে বাসায় ফেরার পথে বিপরীত রাস্তা থেকে কোনো হর্ন না বাজিয়ে, কোনো সিগনাল না দিয়ে আমার গাড়ির সামনে প্রচণ্ড বেগে তেড়ে এসেছে একটি প্রাইভেট কার যার গ্লাস ছিলো ব্ল্যাক পেপার দিয়ে মোড়ানো এবং কোনো নাম্বার প্লেট ছিলোনা। আমার ড্রাইভার হার্ড ব্রেক না করলে হয়তো অন্য কিছু হতে পারতো। আর আমি নিজেও ড্রাইভিং জানি তাই কোনটি দুর্ঘটনা আর কোনটি ইচ্ছাকৃত তা বোঝার ক্ষমতা নিশ্চয়ই একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের মত আমারও আছে।

প্রথম দিন সব বুঝতে পেরেও মনকে স্বান্তনা দিয়েছিলাম হয়তো বিপরীত দিক থেকে আসা গাড়ি এতো জোরে আসার কারণে কন্ট্রোল রাখতে পারেনি কিন্তু একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হলে তো সেটি আর বুঝতে বাকি থাকে না যে এটি উদ্দেশ্যমূলকভাবেই করানো হচ্ছে।

অনেক দিন ধরেই আমি নানানভাবে নানান কিছু বুঝতে পারছি, শুনতে পারছি। কিন্তু যারাই এসব ন্যাক্কারজনক অপরাধের সাথে জড়িত থাকবেন তারাও নিশ্চই বার বার সুযোগের অপেক্ষায় থাকবেন। কিন্তু মনে রাখবেন কেউই আইনের ঊর্ধ্বে নন, আর আল্লাহ তো একজন আছেন যিনি সবই দেখেন। শিগগিরই আমি ব্যবস্থা নিবো এ ব্যাপারে। সবাই দোআ করবেন আমার জন্য।”

এদিকে জিডি প্রসঙ্গে উত্তরা পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আকতারুজ্জামান ইলিয়াস জানিয়েছেন, জিডি হয়েছে, এবার তদন্ত হবে। একজন ‍উপপরিদর্শক বিষয়টি তদন্ত করবেন। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো যাবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102