মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১২:৪৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে দুর্গাপূজা উপলক্ষে মির্জা ফয়সাল আমিনের এর পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজোর মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু ঠাকুরগাঁওয়ে সংঘর্ষ এড়াতে দুর্গা মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি ডিবির অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্রদের মাঝে গরুর বাছুর বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের কবরে ছেলের লাশ উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার ২ অভিনন্দন মোখলেছুর রহমান খান ভাসানী ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও এএসপি এনায়েত করিমের যৌথ প্রচেষ্টায় কবরস্থান পেলো বেদে সম্প্রদায় ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ দফা দাবিতে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

পুলিশের ৩ সাক্ষীকে কারাগার থেকে নিয়ে গেল র‌্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হালনাগাদ সময় : শনিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২০
  • ৪৬ বার
পুলিশের ৩ সাক্ষীকে কারাগার থেকে নিয়ে গেল র‌্যাব

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যার ঘটনায় পুলিশের করা মামলার ৩ সাক্ষীকে চার দিনের রিমান্ডে নিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা র‌্যাব।

ওই ৩ সাক্ষীরা হলেন- নুরুল আমিন, নাজিম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আইয়াস।

শনিবার (২৯ আগস্ট) বেলা সোয়া ১১টায় এই তিন আসামিকে জেলা কারাগার থেকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যান র‌্যাব সদস্যরা। পরে কক্সবাজার র‌্যাব কার্যালয়ে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এই ঘটনায় গত ০৫ আগস্ট তাঁর বোন শাহরিয়ার শারমিন ফেরদৌস বাদি হয়ে ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, লিয়াকত আলী ও নন্দ দুলাল রক্ষিতসহ পুলিশের ০৯ সদস্যকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। র‌্যাবকে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়।

ওই ঘটনায় টেকনাফ থানায় করা পুলিশের মামলায় সাক্ষী করা হয় মারিশবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা নুরুল আমিন, নাজিম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আইয়াস। পরে তাঁদের তিনজনকে সিনহার বোনের করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। প্রথম দফায় এই তিন সাক্ষীকে ৭দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন র‌্যাবের তদন্তকারীরা। ২৩ আগস্ট কক্সবাজার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাঁদের দ্বিতীয় দফায় রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন মঞ্জুর করেন।

শনিবার বেলা পৌনে ১১টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা জেলা কারাগারে যান। সোয়া ১১টার দিকে আসামি নুরুল আমিন, নাজিম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আইয়াসকে গাড়িতে তুলে নেন তাঁরা। প্রথমে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য তাঁদের নেওয়া হয় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে। সেখান থেকে তাঁদের নেওয়া হয় র‌্যাব-১৫ কক্সবাজার কার্যালয়ে। বর্তমানে ওই তিনজনকে সেখানে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও র‌্যাবের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) খাইরুল ইসলাম বলেন, গত শুক্রবার বিকেলে তৃতীয় দফায় সিনহা হত্যা মামলার প্রধান তিন আসামি টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলী ও থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নন্দদুলাল রক্ষিতকে তিন দিনের রিমান্ডে আনা হয়। শনিবার থেকে তাঁদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। তবে প্রদীপ, লিয়াকত ও নন্দদুলালের সঙ্গে মারিশবুনিয়ার এই তিন সাক্ষীর মুখোমুখি জেরা হবে কি না, সেটি নিশ্চিত করেনি তদন্তকারীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪৩,৭৯০,৫৪৩
সুস্থ
৩২,১৮২,৭৩৭
মৃত্যু
১,১৬৪,৬০৯
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102