শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০২:০৮ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজোর মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু ঠাকুরগাঁওয়ে সংঘর্ষ এড়াতে দুর্গা মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি ডিবির অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্রদের মাঝে গরুর বাছুর বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের কবরে ছেলের লাশ উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার ২ অভিনন্দন মোখলেছুর রহমান খান ভাসানী ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও এএসপি এনায়েত করিমের যৌথ প্রচেষ্টায় কবরস্থান পেলো বেদে সম্প্রদায় ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ দফা দাবিতে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন পূজা মণ্ডপে সন্ধ্যায় আরতির পর প্রবেশ নিষেধ

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রভাবশালীর ষড়যন্ত্রের শিকার এক এতিম ছেলে; ভয়ে যেতে পারছে না নিজ জমিতে !

সংবাদদাতার নাম
  • হালনাগাদ সময় : রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৫৯ বার

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ে এক প্রভাবশালী ব্যক্তির ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে নিজের পৈত্রিক জমিতে যেতে পারছে না রবিউল ইসলাম বাবু নামে এক এতিম ছেলে। উল্টো সেই জমিতে গেলে পুলিশ দিয়ে হয়রানি করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করে সে।

ঘনটাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানাধীন ধর্মপুর নামক এলাকায়। এতে ওই এলাকার মানুষদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে।

রবিউল ওই এলাকার মৃত- আব্দুল হানিফ (পিতা) ও মৃত- রাবয়ো বেগমের(মাতা) ছেলে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায, পৈতৃক সুত্রে রবিউল ইসলাম বাবু ধর্মপুর মৌজার জেেএল নং-২২, খতিয়ান: এসএ-৫৬১, খারিজ নং-৭৮২, দাগ নং-৮২৯৪ এর ২.৪৪ শতক হতে ৩১ শতক জমির মালিক।

এদিকে মনোয়ার উল ইসলাম নামে সেনাবাহিনীর এক মেজর ধর্মপুর এলাকায় উল্লেখিত ৩১ শতক জমি এবং আরও বেশ কয়েকজন জমির মালিক দাবিদারের জমিসহ মোট ৩০ বিঘা (এক হাজার শতক) জমি উপর বাউন্ডারী দিয়ে সেখানে বিভিন্ন ধরণের আবাদ করে আসছিলেন এবং ৩১ জমির মালিক এতিম ছেলে রবিউল ইসলাম বাবুকে বার্ষিক জমির ভাড়া বাবদ পাঁচহাজার টাকা করে প্রদান করতেন। যা এলাকার মেম্বারসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিরা সহ অকেকেই জানতেন।

সম্প্রতি মেজর সেই জমিগুলোর মালিক তিনি একাই দাবি করে ঠাকুরগাঁওয়ের নানা বল সাবান এর স্বত্তাধিকারী আলহাজ্ব মো: আলমগীর হোসেন এর নিকট স্বল্প মূল্যে বিক্রি করে দেন। এতে মাথায় হাত পড়ে অন্যান্য দাবিদারসহ মা-বাবা হারানো এতিম ছেলে রবিউল ইসলাম বাবুর।

এদিকে জমি ক্রয়ের পর তা ‘নানা এগ্রো ফার্ম’ নামে সাইনবোর্ড লাগিয়ে ব্যবসায়িক কার্যক্রম চালু করেন ফার্মের পরিচালক ও নানা বল সাবানের স্বত্তাধিকারী আলহাজ্ব মো: আলমগীর হোসেন। এ অবস্থায় রবিউল ইসলাম বাবু মেজরের জমি বিক্রয়ের বিষয়টি অবগত হয়ে জমিতে নিজের অবস্থান নিতে গেলে তাকে পুলিশ দিয়ে হয়রানিসহ নানা হুমকি-ধামকি প্রদান করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

এ ব্যাপারে ওই এলাকার মেম্বার ঈমান আলী, ব্যবসায়য়ী খলিলুর রহমান, মো: বাবলু জানান, একটি এতিম ছেলের সম্পত্তি এভাবে জবরদখল করা ঠিক হচ্ছে না। আমার এলাকাবাসি এর সুষ্ঠ সমাধান চাই। এছাড়াও রবিউলকে বার্ষিক অর্থ প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত করে মেম্বার ঈমান আলী।

৩১ শতক জমির দাবিকারি রবিউল ইসলাম বাবু জানান, আমার বাবা-মা’য়ের নামে ৩১ শতক জমি রয়েছে মেজর সাহেবের বিক্রি করা জমির মধ্যে। তিনি আমাকে প্রত্যেক বছর পাঁচ হাজার টাকা করে জমির ভাড়া দিতেন, এটা এলাকার অনেকেই জানেন।তিনি আমাকে না জানিয়ে সব জমি নিজের বলে বিক্রি করে এলাকা ছেড়েছেন। এদিকে গত ৩ এপ্রিল ‘নানা ফার্ম এগ্রো’  অবৈধভাবে আমার ৩১ শতক জমির মাটি স্ক্যাভাটার দিয়ে কাটতে গেলে আমি তাতে বাঁধা দেই এবং রুহিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ করি। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ কোন তদন্তই করলো না, ফলে পরের দিন আবার মাটি কাটা শুরু করলে আবারও আমি বাঁধা দিতে যাই-এসময় পুলিশ এসে উল্টো তাদের কিছু না বলে আমাকেই ধরতে ধাওয়া করে। এ ব্যাপারে আমি উর্ধতন কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করছি।

অভিযোগ রয়েছে ৩০ বিঘা জমির বাজারমুল্য প্রায় আড়াই কোটি টাকা হলেও বিক্রয়কালে জমির মূল্য ধরা হয়েছে চুয়াল্লিশ লক্ষ আটত্রিশ হাজার টাকা। এতে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব হারিয়েছে সরকার।

এ ব্যাপারে জমির বর্তমান মালিক নানা বল সাবানের স্বত্তাধিকারি আলহাজ্ব মো: আলমগীর হোসেন জানান, আমি ক্রয়সুত্রে ওই জমির মালিক। এখন সেখানে রবিউল ইসলাম বাবু যদি ৩১ শতক জমির মালিক হয়ে থাকেন তাহলে তিনি আইনের আশ্রয় নিক।আইনীভাবে যদি আদালত তাকে মালিকানা দেয় তাহলে আমি জমি ছেড়ে দিবো। তবে পুলিশ পাঠিয়ে হয়রানি বা হুমকি-ধামকি প্রদানের বিষয়ে তিনি অস্বীকার করেন।

এ বিষয়ে জানতে রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চিত্তরঞ্জন রায়ের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি যতদুর জানি মেজর সাহেব ৩০ বছর দখলে রেখে এ জমি ভোগ করে অবশেষে নানা বল সাবানের স্বত্তাধিকারি আলমগীর হোসেন এর কাছে বিক্রি করে দিয়েছেন। সে মোতাবেক এখন জমির মালিক আলমগীর হোসেন। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিলো। তবে ৩১ শতক জমির মালিক দাবি করা রবিউল ইসলাম বাবু যদি প্রকৃত মালিক হয়ে থাকে তাহলে তাকে আদালতের স্বরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

বিডি/ডেস্ক

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪২,০২৬,৮৯৪
সুস্থ
৩১,২০৩,৭০৮
মৃত্যু
১,১৪৩,২২৫
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102