বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে দুর্গাপূজা উপলক্ষে মির্জা ফয়সাল আমিনের এর পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজোর মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু ঠাকুরগাঁওয়ে সংঘর্ষ এড়াতে দুর্গা মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি ডিবির অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্রদের মাঝে গরুর বাছুর বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের কবরে ছেলের লাশ উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার ২ অভিনন্দন মোখলেছুর রহমান খান ভাসানী ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও এএসপি এনায়েত করিমের যৌথ প্রচেষ্টায় কবরস্থান পেলো বেদে সম্প্রদায় ঠাকুরগাঁওয়ে ৭ দফা দাবিতে স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন

ঠাকুরগাঁওয়ে কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে আসছে ধলা পাহাড়

নিজস্ব প্রতিনিধি
  • হালনাগাদ সময় : সোমবার, ১৩ জুলাই, ২০২০
  • ৬৩ বার

ঠাকুরগাঁওয়ের বাজারে কোরবানি ঈদকে সামনে রেখে আসছে এক হাতি আকৃতির ষাঁড় ধলা পাহাড়।গত চার বছর ধরে ঠাকুরগাঁও নিশ্চিতপুর হ্যাডসে লালন-পালন হচ্ছে এই ধলা পাহাড়।কোরবানির ঈদে এটি বাজারে নিয়ে আসবেন বলে জানান উদ্যোক্তা।কোরবানির ঈদকে ঘিরে এখন পর্যন্ত পশুর বাজার মন্দা থাকলেও উদ্যোক্তা মাসুমা খানম মিষ্টি আশা করেন লম্বায় ৮ ফিট ১০ ইঞ্চি ও উচ্চতায় ৫ ফিট ৬ ইঞ্চির এই গরুর গোস্ত হবে ১ টন আর বিক্রি হবে ১০ লক্ষ টাকায়।

মাসুমা খানম জানান, ধলা পাহাড়কে তৈরী করতে প্রতিদিন ৪/৫ কেজি ভুসি,২ কেজি খৈল,৩.৫০ কেজি ভুট্টার গুড়া, ১.৫০ কেজি ছোলা লাগছে। তবে ধলা পাহাড়কে বাজারে তুলবেননা বলেও তিনি জানান। হ্যাডস থেকেই সেটি বিক্রি করবেন।

এদিকে ধলা পাহাড়কে কেনার জন্য ইতিমধ্যে ক্রেতারা যোগাযোগ করছেন বলে মাসুমা জানান।২০১৮ সালে সারা দেশে সেরা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার পুরস্কার পাওয়া এই মাসুমা খানম নতুন কিছু তৈরী করে মানুষকে চমকে দিতে অভ্যস্ত। মজার ব্যাপার ঠাকুরগাঁওয়ের কোন বাজারে ইতিপূর্বে এত বড় গরু কখনও তৈরী হয়নি বা বিক্রি হয়নি।

মাসুমা খানম জানান,২০১২ সালে তিনি প্রথম হ্যাডসে চিজ ফ্যাক্টরি গড়ে তোলেন সৃষ্টি কর্তার অশেষ কৃপায় তার আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।তার তৈরী চিজ এখন সারাদেশে বাজারজাত হচ্ছে।তার পাশাপাশি তিনি তৈরি করেছেন গরু ও ছাগলের খামার।তার খামারে এখন কাজ করে কয়েকটা পরিবার চলে।ধলা পাহাড় জন্মের পর থেকেই তার ইচ্ছে ছিল এটাকে বিশেষভাবে তৈরি করবেন।আর হয়েছেও তাই।এই ধলা পাহাড় নিয়মিত দেখাশোনার জন্য রয়েছেন দুজন কর্মচারী আমিনুল ও হেমন্ত।

আমিনুল বলেন, ধলা পাহাড়ের মা প্রতিদিন ১৬ লিটার দুধ দিত।ধলা পাহাড় মায়ের প্রথম সন্তান।জন্মের পরই ওর মধ্যে একটু বাড়তি গ্রোথ দেখা দেয়। এরপর মালিক সিদ্ধান্ত নেন এটাকে বিশেষভাবে বড় করবেন।তারা আশা করেন এটাকে কমপক্ষে ১০ লক্ষ টাকায় বিক্রি করবেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪৪,২৫১,৯৮৩
সুস্থ
৩২,৪৪৬,৯৭০
মৃত্যু
১,১৭১,৪৭৬
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102