শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:২৮ পূর্বাহ্ন

ছেলেসহ তুলে নিয়ে বিউটিশিয়ানকে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হালনাগাদ সময় : শুক্রবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৪৬ বার
ছেলেসহ তুলে নিয়ে বিউটিশিয়ানকে ধর্ষণ

গাজীপুরের জিরানী এলাকায় ছেলেসহ প্রাইভেটকারে এক বিউটিশিয়ানকে তুলে নিয়ে যাওযার পর ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযুক্ত পিন্টুকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার রাতে জেলার কাশিমপুর থানাধীন জিরানী এলাকায় ওই ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। গ্রেপ্তার পিন্টু স্থানীয় রেন্ট-এ-কারের চালক।

কাশিমপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) একে মানিক জানান, ভুক্তভোগী ও পিন্টু পূর্ব পরিচিত এবং তারা উভয়ে কালিয়াকৈর এলাকার বাসিন্দা। ভুক্তভোগী স্থানীয় বিউটি পার্লারে এবং পিন্টু একই এলাকায় রেন্ট-এ কার প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। বুধবার রাতে ভুক্তভোগী কালিয়াকৈরে তার ছেলে (৮) ও এক তরুণীকে (১৮) নিয়ে রাস্তার পাশে গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় পিন্টু প্রাইভেটকার নিয়ে যাওয়ার পথে ভুক্তভোগীকে তার গাড়িতে তুলে নেন। পরে চটপটি খাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুত এলাকায় নিয়ে যান।

সেখান থেকে চটপটি খেয়ে ফেরার পথে জিরানী এলাকায় পৌঁছালে ভুক্তভোগীর সঙ্গে থাকা তার ছেলে ও ওই তরুণী হালিম খাওয়ার জন্য প্রাইভেটকার থেকে নামেন এবং হালিমের দোকানে যান। তারা দোকানে বসে হালিম খাওয়াকালেই কিছু বুঝে ওঠার আগেই পিন্টু প্রাইভেটকারে থাকা ভুক্তভোগীকে নিয়ে পাশের এক নির্জন স্থানে যান এবং ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই প্রাইভেটকারের ভেতরেই ধর্ষণ করেন।

বিষয়টি ফাঁস করলে ভুক্তভোগীকে খুন করার হুমকি দেন পিন্টু। পরে সবাইকে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে কালিয়াকৈর নামিয়ে পিন্টু চলে যান। ঘটনাটি কাশিমপুর থানা এলাকায় ঘটলেও আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ভুক্তভোগী ভুল করে আশুলিয়া থানায় মামলা করতে যান। তখন পিন্টু খবর পেয়ে আশুলিয়া থানায় ঘটনাটি মিমাংসা করতে যান। এ সময় ভুক্তভোগী পুলিশকে জানালে আশুলিয়া থানা পুলিশ পিন্টুকে আটকে রাখে। খবর পেয়ে কাশিমপুর থানা পুলিশ তাকে আটক করে নিয়ে আসার পর ভুক্তভোগীর করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এ বিষয়ে কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুব-এ খোদা বলন, ‘বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভুক্তভোগী বাদী হয়ে কাশিমপুর থানায় পিন্টুর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি স্বজনদের সঙ্গে পরামর্শ করে মামলার দায়েরে বিলম্ব হয়েছে বলে জানিয়েছে ওই নারী। আগামীকাল শুক্রবার তাকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102