শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৯:১৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে পঞ্চগড়ে মামলা বাংলাদেশ উন্নয়নের বিষে লাল হয়ে গেছে; রুমিন ফারহানা খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে প্রেরণের দাবিতে যুবদলের বিক্ষোভ উলিপুরে শিক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ, তদন্তে দুদক ঠাকুরগাঁওয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থীর শাড়ি লুঙ্গি বিতরণ, বাধাঁ দেওয়ায় ইউপি সদস্য লাঞ্ছিত ঠাকুরগাঁওয়ে বিএনপির রোমান বাদশা এবার নৌকার মাঝি! নৌকা প্রতিক পেয়ে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানালো চেয়ারম্যান মুকুল ২৩ ডিসেম্বরে হচ্ছে না চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচন শেষ মুহূর্তে নির্বাচনী প্রচারণায় ব্যস্ত স্বতন্ত্রপ্রার্থী বকুল কাল থেকে সিলেটে অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট

গর্ভাবস্থায় ব্যায়াম কতটা জরুরি, জেনে নিন…

অনলাইন ডেস্ক
  • হালনাগাদ সময় : মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২০১ বার
গর্ভাবস্থায় ব্যায়াম কতটা জরুরি, জেনে নিন...

অনেকেই আছেন গর্ভাবস্থায় নড়াচড়াই করতে চান না। এতে করে শরীর আরো বেশি ভারী হয়ে যায়। ফলে প্রসবের সময় দেখা দেয় নানা জটিলতা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন এই সময় কিছু পরিশ্রম করা উচিত। আর সেই সুযোগ না থাকলে বাড়ির কাজ, হালকা ব্যায়াম করতে পারেন। গর্ভাবস্থায় ব্যায়াম করলে তা শরীর এবং মন উভয়ের জন্যই উপকারী। এতে আপনার শরীর ভারী হয়ে যাবে না। আর প্রসব পরবর্তি অসুস্থতা দ্রুত নিরাময় হয়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, এই সময় সাঁতার, স্কুবা ডাইভিং এবং কিছু হালকা যোগ ব্যায়াম শরীর এবং মন উভয়ের জন্যই লাভজনক। গর্ভাবস্থায় সাঁতার অন্যতম সেরা ব্যায়াম। এতে করে পেতে পারেন নানা উপকারিতা। জেনে নিন সেগুলো-

> গর্ভাবস্থায় সাঁতার গোড়ালি এবং পায়ের ফোলাভাব দূর করতে সহায়তা করে, পাশাপাশি এটি ব্লাড সার্কুলেশনও বাড়ায়।
> সাঁতার কাটা মর্নিং সিকনেস কমায়। গর্ভাবস্থায় অনেকেই সকালে ঘুম থেকে উঠে বমি বমি ভাব অনুভব করেন, যেটা কমাতে সাঁতার সহায়তা করতে পারে।
> গর্ভাবস্থায় সাঁতার কাটা অত্যন্ত নিরাপদ ও ভালো ব্যায়াম। এতে দেহের বিভিন্ন অস্থিসন্ধি, লিগামেন্ট, ইত্যাদির ব্যথা কমে।
> সাঁতার মাংসপেশী ঠিক রাখে এবং স্ট্রেচিবিলিটি বৃদ্ধি হয়, ফলে প্রসবের সময় খুব একটা সমস্যা হয় না।
> এছাড়াও, হাড় এবং জয়েন্টগুলোতেও আরাম হয়।

গর্ভাবস্থায় সাঁতার কাটার কিছু পরামর্শ

> শরীরের সঙ্গে ভালোমতো ফিট হয় এমন স্যুইম স্যুট নিন। এইসময় যতদিন এগোবে ততই শারীরিক আকারের পরিবর্তন হবে, তাই এটি সবসময় মনে রাখবেন।

> পানিতে বা পুলের আশপাশ পিচ্ছিল হতে পারে, তাই খুব সাবধানে চলাফেরা করুন। কোনোভাবে যাতে পড়ে না যান, সেইদিকে খেয়াল রাখবেন।

> হাইড্রেট থাকুন, কারণ তৃষ্ণার্ত বোধ না করলেও আপনি সাঁতারের সময় ডিহাইড্রেট হতে পারেন।

> সাঁতার কাটার সময়, সর্বদা কাউকে আপনার চারপাশে রাখুন। একা সাঁতার কাটতে যাবেন না।

> এছাড়াও সাঁতার বা শরীরচর্চা করার ক্ষেত্রে আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে অবশ্যই পরামর্শ করে তারপর সিদ্ধান্ত নিন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102