শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঠাকুরগাঁওয়ে যাত্রা শুরু করল অনলাইন ভিত্তিক খাবার সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান ‘ফুডপ্যান্ডা’ ঠাকুরগাঁওয়ে দুর্গাপূজা উপলক্ষে মির্জা ফয়সাল আমিনের এর পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে দুর্গাপূজোর মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু ঠাকুরগাঁওয়ে সংঘর্ষ এড়াতে দুর্গা মন্দিরে ১৪৪ ধারা জারি ডিবির অভিযানে ১৫০ বোতল ফেন্সিডিলসহ ঠাকুরগাঁওয়ে নারী মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ঠাকুরগাঁওয়ে পুকুর থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার! ঠাকুরগাঁওয়ে করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দরিদ্রদের মাঝে গরুর বাছুর বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ে মায়ের কবরে ছেলের লাশ উদ্ধার মামলায় গ্রেফতার ২ অভিনন্দন মোখলেছুর রহমান খান ভাসানী ডিআইজি হাবিবুর রহমান ও এএসপি এনায়েত করিমের যৌথ প্রচেষ্টায় কবরস্থান পেলো বেদে সম্প্রদায়

কুড়িগ্রামে ৫ বছরের শিশু ধর্ষন মামলার আসামী গ্রেফতার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
  • হালনাগাদ সময় : রবিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ২১ বার
কুড়িগ্রামে ৫ বছরের শিশু ধর্ষন মামলার আসামী গ্রেফতার

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার ঘোগাদহ ইউনিয়নে ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে রাজু মিয়া (১৮) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৬ অক্টোবর) অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রাজু মিয়াকে গ্রেফতার করে দুপুরে আদালতে প্রেরণ করা হয়। নির্যাতিত শিশুটি কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মামলার তদন্তকারী অফিসার এস আই কাইয়ুম ও এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১২ অক্টোবর ঘোগাদহ ইউনিয়নের কাচিরচর গ্রামের আবুল হোসেনের পূত্র রাজু মিয়া প্রতিবেশী মুকুলের ৫ বছরের শিশু কন্যাকে ডাব খাওয়ানোর কথা বলে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে মেয়েটিকে নিয়ে যায়। পরে শৌচাগারে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় মেয়েটির আর্তচিৎকারে প্রতিবেশী সহিদুলের স্ত্রী মলিনা, ছালামের স্ত্রী বেবীনা ও বারেকের স্ত্রী রাশেদা এগিয়ে আসলে রাজু মিয়া দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনার পর শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। রাতেই শিশুটির পিতা মুকুল হোসেন বাদি হয়ে রাজু মিয়াকে অভিযুক্ত করে কুড়িগ্রাম সদর থানায় ২০০০সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে (সংশোধনী/২০০৩) এর ১(৪)(খ) ধারায় মামলা দায়ের করেন।

শিশুটির পিতা জানান, এ ঘটনার পর ধর্ষক রাজু মিয়ার পক্ষে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল চত্বরে মীমাংসার জন্য চাপ দেয় অভিযুক্ত রাজু মিয়ার পক্ষে একই এলাকার কুরিয়ার বাজারের গালামাল ব্যবসায়ী সিরাজুল ও তার পরিচিত আলু ব্যবসায়ী হাবিবুর। তারা প্রথমে ৮০ হাজার ও পরে ১লক্ষ টাকা দিয়ে মামলা না করার পরামর্শ দেয়। এদিকে মুকুলের পরিবার থেকে তার চাচা সাবেক মেম্বার তেমাল হোসেন ও তার আপন ভাইয়েরা প্রথমে ৫লাখ ও পরে ৩ লক্ষ টাকা চান। বিষয়টি সাংবাদিকদের নজরে আসলে পুলিশ তৎপর হয়ে চারদিকে খোঁজখবর করে শুক্রবার কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই কাইয়ুম পুলিশ ফোর্স নিয়ে কাচিরচর কামারপাড়া গ্রামে তার মামার বাড়ি থেকে অভিযুক্ত রাজু মিয়াকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

শিশুটির স্বাস্থ্যগত ব্যাপারে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: রেদওয়ান ফেরদৌস সজীব জানান, শিশুটির মেডিকেল চেকআপ করা হয়েছে। পাশাপাশি তার চিকিৎসা চলছে। বর্তমানে তার অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, ঘটনা জানার পর থেকেই পুলিশ তৎপর ভূমিকা পালন করে। বারবার অবস্থান পরিবর্তন করায় অভিযুক্ত আসামীকে ধরতে বিলম্ব হয়। পরে শুক্রবার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আসামী রাজু মিয়াকে গ্রেফতার করে দুপুরে বিজ্ঞ চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪৫,৮৯২,১৩৩
সুস্থ
৩৩,২৩৭,৮৩৩
মৃত্যু
১,১৯৩,২১৪
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102