বুধবার, ২১ অক্টোবর ২০২০, ০৪:২২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
দ্বিতীয় বিয়ের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে সিগারেটের ছ্যাঁকা দিল স্বামী বাংলাদেশে নির্বাচন ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে: ফখরুল বাংলাদেশে লাখো পোশাকশ্রমিক ক্ষতিগ্রস্ত জামাইয়ের ভুয়া প্রেসক্রিপশন, স্বাক্ষর শ্বশুরের কক্সবাজারের মহেশখালীতে ৬ দিন ধরে নিখোঁজ গৃহবধূর পুঁতে রাখা লাশ উদ্ধার কুড়িগ্রামে ৫ বছরের শিশু ধর্ষন মামলার আসামী গ্রেফতার কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশের ৭৮টি বিটে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী পুলিশিং সমাবেশ উলিপুরে গলায় ফাঁস দি‌য়ে বৃদ্ধার আত্মহত‌্যা কুড়িগ্রামের কালজানী নদী থেকে মরদেহ উদ্ধার ঠাকুরগাঁওয়ে ধর্ষন ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে একযোগে ৫৩টি ইউনিয়নে বিট পুলিশিং সমাবেশ

এবার পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের নজরদারিতে নামছে গোয়েন্দা সংস্থা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • হালনাগাদ সময় : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৯ বার
এবার পেঁয়াজ সিন্ডিকেটের নজরদারিতে নামছে গোয়েন্দা সংস্থা

ভারতের পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষণাকে পুঁজি করে দেশে পেঁয়াজের বাজার অস্থির করে তুলেছে একটি সুযোগসন্ধানী সিন্ডিকেট। কৃত্রিম সংকট তৈরি করা এই চক্রকে খুঁজে বের করতে পাবনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী ও মানিকগঞ্জ জেলাকে বিশেষ নজরদারিতে রেখেছে সরকার।

গত বছরও চক্রটি কারসাজি করে ব্যাপকভাবে বাড়িয়েছিল পেঁয়াজের দাম। তাই সুযোগসন্ধানী সিন্ডিকেটের সদস্যদের খুঁজে বের করতে মাঠে নামানো হচ্ছে সরকারের চারটি গোয়েন্দা সংস্থাকে। বর্তমানে ওই চার জেলাতে অন্তত ছয় লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে বলে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, এবার শুরু থেকেই পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি নিয়ে তৎপর ছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। তাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কয়েকটি টিম দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পেঁয়াজ মজুদের সার্বিক পরিস্থিতি দেখতে যায়।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের টিম জেলাগুলোর জেলা প্রশাসক ও স্থানীয়দের সঙ্গে বৈঠক করবে। যাতে করে কোনোভাবেই ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ মজুদ রেখে কৃত্রিম সংকট তৈরি করতে না পারে। এসব সুযোগসন্ধানী সিন্ডিকেটের সদস্যকে খুঁজে বের করতে এবার যৌথভাবে মাঠে নামছে সরকারের চারটি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা। চারটি গোয়েন্দা সংস্থা যৌথভাবে এ কাজটি করবে। বাজার মনিটরিংয়ে এরা নিয়মিত কাজ করলেও এবারের প্রেক্ষাপট ভিন্ন। বাড়তি কিছু দায়িত্ব দিয়ে তাদের মাঠে নামানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

এসব টিম সরেজমিন পরিদর্শন ও গোয়েন্দা সূত্রে জানতে পারে পাবনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী ও মানিকগঞ্জ- এই চার জেলায় অন্তত ছয় লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ মজুদ রয়েছে। ইতোমধ্যে এসব জেলায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর হঠাৎ করে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এতে দেশের বাজারে অস্থির হয়ে ওঠে পেঁয়াজের দাম। ৬০ টাকার দেশি পেঁয়াজের দাম মঙ্গলবার ১১০ টাকা পর্যন্ত উঠে যায়। আর পাইকারিতে ৫০ টাকা থেকে বেড়ে পেঁয়াজের কেজি হয় ৮৫ টাকা। কোনো কোনো পাইকার ৯০ টাকা কেজিতেও পেঁয়াজ বিক্রি করেন। এমন দাম বাড়ায় আতঙ্কিত হয়ে ভোক্তাদের মধ্যে বাড়তি পেঁয়াজ কেনার হিড়িক পড়ে যায়।

রাজধানীতে পেঁয়াজের সব থেকে বড় পাইকারি বাজার শ্যামবাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৭২ টাকা, যা আগের দিন ছিল ৬৫ টাকা থেকে ৭০ টাকা। অপরদিকে আমদানি করা ভারতের পেঁয়াজ মান ভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫০ থেকে ৫৫ টাকা কেজিতে। তবে আমদানি করা নষ্ট পেঁয়াজ কোনো কোনো ব্যবসায়ী ৪০ টাকা কেজিতেও বিক্রি করছেন।

অপরদিকে বিভিন্ন খুচরা বাজারে খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, গত দুদিনের মতো সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দেশি পেঁয়াজের কেজি বিক্রি হয়েছে ৮০ থেকে ৯০ টাকা দরে। আর আমদানি করা ভারতের পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ টাকায়।
দেশে বছরে প্রায় ২৫ লাখ টন পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে। চলতি বছর এর বেশি উৎপাদন হয়েছে। তবে সংগ্রহ এবং সংরক্ষণে ২০ থেকে ২৫ শতাংশ নষ্ট হয়। ফলে প্রকৃত উৎপাদন ১৯ লাখ টনের বেশি। বাকিটা আমদানি করা হয়। এর মধ্যে ভারত থেকে আসে ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
১৭৮,৪৪৩
সুস্থ
৮৬,৪০৬
মৃত্যু
২,২৭৫

বিশ্বে

আক্রান্ত
৪১,১০০,২৬৩
সুস্থ
৩০,৬৫৬,১৫৩
মৃত্যু
১,১৩০,৫৫০
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত- বাংলার আলো বিডি
themesba-lates1749691102