মঙ্গলবার , অক্টোবর ১৬ ২০১৮

পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৪ লাখ মানুষের জন্য ৪ জন ডাক্তার

জাকির হোসেন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও): ঠাকুরগাওঁয়ের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ৪ লাখ মানুষের জন্য ৪ জন ডাক্তার দিয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা। চিকিৎসক ও যন্ত্রপাতির অভাব এবং নানা অনিয়মের কারণে চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন উপজেলার ৪ লাখ মানুষ।

পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সকে ২০১০ সালে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে উন্নতি করা হলেও গত ৮ বছরে জনবলকাঠামো ভালোভাবে অনুমোদিত না হওয়ায় ৫০ শয্যা হাসপাতাল শুধু নামেই চলছে। ৩১ শয্যার জনবল দিয়েই চলছে হাসপাতালের কার্যক্রম। ৩১ শয্যা জনবল কাঠামো অনুযায়ী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে প্রথম শ্রেণী চিকিৎসকের পদ রয়েছে ২১টি সেখানে বর্তমানে কর্মরত আছেন মাত্র ৪ জন। এক্সরে মেশিনটি সাড়ে নয় বছর ও ডেন্টাল চেয়ার এগারো বছর ধরে বিকল অবস্থায় রয়েছে।

আল্ট্রাসোনোগ্রাম মেশিনের প্রিন্ট্রার প্রায় ১ বছর ধরে অচল। ফলে দুর থেকে কষ্ট আসা ফলে গ্রামের মানুষগুলো চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। ২১টি চিকিৎসক পদের বিপরীতে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ নজরুল ইসলাম জুনিয়র কনসালট্যান্ট গাইনী, আরএমও ডাঃ হুমায়ুন কবির, ডাঃ জুবায়ের রহমান, ডেন্টাল চিকিৎসক তাহমিনা সুলতানা আশরাফি ও ২ জন উপসহকারী মেডিক্যাল অফিসার গোলাম মোস্তফা ও সারা হেমব্রমকে দিয়েই চলছে ৫০ শয্যা হাসপাতালের কার্যক্রম।

এছাড়াও ভোমরাদহ ও জাবরহাট উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রে কর্মরত রয়েছেন দুইজন উপসহকারী মেডিক্যাল অফিসার জুবায়ের আহমেদ ও রেজিনা খানম।ফলে ৪জন চিকিৎসক ও ৪জন উপসহকারী চিকিৎসক দিয়েই উপজেলায় প্রায় ৪লাখ মানুষের স্বাস্থ্যসেবা খুব কষ্ট করে দেওয়া হচ্ছে বলে চিকিৎসকরা জানান। এতে উপজেলার প্রায় ৪লাখ মানুষকে নির্ভর করতে হচ্ছে ৪ জন চিকিৎসকের উপরে। সম্প্রতি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা হাসপাতালের প্যাথোলজী বিভাগে শুরু হলেও হাসপাতাল ল্যাবের রিপোর্টের উপর চিকিৎসকদের আস্থা কম। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পরিকল্পনা (ভারপ্রাপ্ত) ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর নিয়মিত দায়িত্ব করার জন্য সবাইকে বলেছি।

আগের এক্সরে মেশিন মেরামত ও ব্যবহার যোগ্য নয় তাই নতুন ডিজিটাল মেশিনের জন্য আবেদন করা হয়েছে। আশা করি শিঘ্রই পাওয়া যাবে আর ডাক্তার সংকটের ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষে প্রতিমাসে অবহিত করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ঠাকুরগাঁও সিভিল সার্জন ডাঃ এবিএম খায়রুল কবির জানান, কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হচ্ছে তিনারা আশ্বাস দিয়েছেন শিঘ্রই ডাক্তার সংকট নিরশন হবে ।

Check Also

ঠাকুরগাঁও রুহিয়ায় ভিক্ষুকদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

রুহিয়া (ঠাকুরগাঁও)  প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও সদর উপজলার রুহিয়া থানার ২০নং রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *